Search

কুঁজো বুড়ির গল্প!

  • Share this:
post-title
এক ছিল কূঁজো বুড়ি। বুড়ির ছিল তিনটি কুকুর। কুকুরেন নাম, রঙ্ঘা বঙ্ঘা আর ভুতু। বুড়ি ঠিক করলো নাতনির বাড়ি যাবে, তাই রঙ্ঘ, বঙ্ঘা, আর ভুতুকে ডাকলে। বলল তোরা বাড়ির পাহারা দে, আমি নাতনিকে দেখে আসি। কুকুর তিনটি বলল, আচ্ছা।
বুড়ি রওয়ানা হলো লাঠি ঠুক ঠুক করে কুঁজো বুড়ি চলল। খানিক দূরে যেতেই এক শিয়ালের সঙ্ঘ বুড়ির দেখা। শিয়াল বলল আমার খুব খিদে বুড়ি, তোমাকে আমি খাবও। বুড়ি বুদ্ধি করে বলল, আমাকে এখন খেয়োও না, আমার গায়ে কি মাংস আছে, আমি আগে নাতনির বাড়ি যাই, আর খেয়েদেয়ে মোটাতাজা হয়ে আসি, তখন বরং খেয়োও। শিয়াল বলল, ঠিক আছে, তবে তাই যাও, মোটাতাজা হয়ে এসো বুড়ি। বুড়ি সামনে এগিয়ে চলে, লাঠি ঠুক ঠুক করে যায় আর যায়। হঠাত এক বাঘ সামনে এসে বলল, বুড়ি তোমাকে এখন আমি খাবও, আমার খুব খিদে। বুড়ি বাঘ কে দেখে মহা মুশকিলে, বুড়ি মনে মনে বলে বাঘ তুমি আমাকে খেতে চাও, আমাকে খাওয়া এত সহজ না বাঘ। বাঘকে বলে, আগে নাতনির বাড়িতে যাই, খেয়েদেয়ে মোটাতাজা হয়ে আসি, তখন বরং আমাকে খেয়ো। বাঘ দেখলো বুড়ির কথা মিছা নয়। বাঘ বলল তবে যাও, কিন্তু ফিরে আসতে হবে, হ্যাঁ। আবার কুঁজো বুড়ি পথ চলে যায়, আস্তে আস্তে লাঠিতে ভর দিয়ে নাতনির বাড়িতে পৌছে গেল বুড়ি।

দুই মাস পরে বুড়ি বাড়িতে যাবে---------------

নাতনির বাড়িতে মজার মজার খাবার খেয়ে বুড়ি অনেক মোটা হয়ো যায়। বুড়ি এখন মহাচিন্তায় পরে যায়, বুড়ি মনে মনে বলে এবার ফিরবে কিভাবে। বুড়ি নাতনিকে সব কথা খুলে বলে। নাতনি বলে চিন্তার কিছু নেই বুড়ি, আমি সব ব্যবস্থা করে দিচ্ছি, বাঘ আর শিয়াল তুমাকে খেতে পারবে না বুড়ি। নাতনি একটা লাউয়ের খোল জোগার করলো, তার ভিতরে ঢুকিয়ে দিলো বুড়িকে, সঙ্ঘে দিলো কিছু চিরা আর গুড়। এবাক খোলটাকে দিলো জোরে এক ধাক্কা, গড়িতে গড়িতে চলে এলো বাঘের কাছে, বাঘ গর গর করে দিলো এক ধাক্কা, আবার গড়ীতে গড়িতে চলল লাউয়ের খোল---লাউ গুড় গুড় লাউ গুড় গুড়, বুড়ি চিড়া খায়, আর খায় গুড়, বুড়ি অনেক দূরে চলে যায়। খোল গড়াতে গড়াতে এলো শিয়ালের কাছে। শিয়াল দেখলো খোলের ভিতরে বুড়ি, শিয়াল বলল এবার যাবে খুতায়, এক্ষুনি তুমাকে খাবও। বুড়ি বলে, শিয়াল খাবি তো খুব ভালো কথা, কিন্তু আমারও তো কিছু ইচ্ছা আছে, মরনের আগে আমার ইচ্ছা টা পুরন করবে না। শিয়াল বলে কি তুমার ইচ্ছা। আমি যে তোমার গান শুনতে চাই। শিয়াল তক্ষুনি গান ধরলে। হুক্কা হুয়া, হুক্কা হুয়া। বুড়ি গিয়ে দাঁড়ালে একটা উঁচু ঢিবির ওপর, বুড়ি গানের সুরে ডাকলো -- আয় আয় তু তু রঙ্ঘা বঙ্ঘা ভুতু, আয় আয় আয়, জলদি চলে আয়, নিমেষেই ছুটে এলো বুড়ির কুকুর তিনটি, শিয়ালকে ঘিরে ফেলল তারা। একটা কামড় দিলো শিয়ালের কানে আরেকটা দিলো ঘাড়ে, একটা পায়ে। বুড়ি বলে, এবার যাবে কোথায় শিয়াল।
Sree Tirtho Kumar Sarkar

Sree Tirtho Kumar Sarkar

I Am A Professional Web Designer And Expert Laravel Web Developer.