সুজানগর এন এ কলেজের সহকারী অধ্যাপক বুলবুলের স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

সুজানগর এন এ কলেজের সহকারী অধ্যাপক বুলবুলের স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

ঐতিহ্যবাহী সুজানগর নিজাম উদ্দিন আজগর আলী ডিগ্রী কলেজের গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সদাহাস্যজ্জল ব্যক্তিত্ব জয়নাল আবেদীন (বুলবুল) স্যার এর স্মরণে এক শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে।

নিজাম উদ্দিন আজগর আলী ডিগ্রী কলেজের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার (০৬ আগস্ট) কলেজের হলরুমে উক্ত শোকসভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। শোক সভায় প্রয়াত জয়নাল আবেদীন (বুলবুল) স্যার এর কর্মময় জীবনের উপর স্মৃতিচারণমূলক বক্তব্য দেন নিজাম উদ্দিন আজগর আলী ডিগ্রী কলেজের অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন, সাবেক সহকারী অধ্যাপক আব্দুল জলিল, কলেজের সহকারী অধ্যাপক আলী আযম খান, আবুল হাশেম ও খয়েরসুতি উচ্চ বিদ্যালয় ও কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোঃ শমশের আলম প্রমুখ।

শোকসভায় কলেজের সহকারী অধ্যাপক আব্দুল লতিফ, জয়নাল আবেদীন, সরদার আছির উদ্দিন, আনোয়ার হোসেন, প্রভাষক সমীর কুমার সরকার, মোখলেছুর রহমান, খলিলুর রহমান, শফিকুল ইসলাম, জীবুন নাহার, আব্দুস শুকুর, হোসনেয়ারা খাতুন, সারমিন সুলতানা, রফিকুল ইসলাম, গোলজার হোসেন, শাহরিয়া খাতুন, শারমিন আখতার, শাহজাহান আলী, হাতেম আলী, রোজি আফরোজ, কামরুন্নাহার, খুরশিদা আফরোজ, এনামুল হক, সাহরিয়ার আলম সিদ্দিক, খান জাহান আলী, আবুল কাশেম, নাহিদ আক্তার, বাবলু আক্তার পলাশ, মাহফুজা খাতুন, কামরুল হাসান, সোহানা নাজনীন, মাহবুবুর রহমান, লাকী আক্তার, আকবর আলী,শরীর চর্চা শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, প্রদর্শক শফিকুল ইসলাম, রওশন আরা, গ্রন্থগার সহকারী শিরিনা আখতার, অফিস সহকারী এস এম আবদুল্লাহ ও মিজানুর রহমান সহ কলেজের অন্যান্য শিক্ষক,কর্মকর্তা ও কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন।

সুজানগর এন এ কলেজের সহকারী অধ্যাপক বুলবুলের স্মরণে শোকসভা ও দোয়া মাহফিল

পরে সহকারী অধ্যাপক জয়নাল আবেদীন (বুলবুল) স্যার এর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা করে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া পরিচালনা করেন সুজানগর সরকারী মডেল পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় মসজিদের পেশ ইমাম মানিক হোসেন। উল্লেখ্য গত সোমবার (৩ আগস্ট) দুপুর ৩টার দিকে পাবনায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন শিক্ষক জয়নাল আবেদীন বুলবুল । মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৫ বছর। তিনি মা, স্ত্রী, ৩ মেয়ে, ২ ভাই, আত্মীয়স্বজন সহ বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

পরে এদিনই রাত ৯টায় তার গ্রামের বাড়ী পাবনা সদর উপজেলার সাদুল্লাপুর ইউনিয়নের দুবলিয়া উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে নামাজে জানাজা শেষে স্থানীয় বালিয়াডাঙ্গী কবরস্থানে তাকে সমাহিত করা হয়। জীবিত থাকাকালীন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পড়াশুনা শেষ করে প্রথমে দুবলিয়া হাজী জসিম উদ্দিন ডিগ্রী কলেজ এবং পরে ১৯৮৮ সালে সুজানগর এন এ কলেজে যোগদানের মাধ্যমে জয়নাল আবেদীন বুলবুল তার শিক্ষকতা জীবন শুরু করেন। এবং আগামী ২০২১ সালে শিক্ষকতা জীবন শেষ করে তিনি অবসর গ্রহন করতেন বলে জানান অধ্যক্ষ আলমগীর হোসেন।

জয়নাল আবেদীনের ৩ ভাইয়ের মধ্যে তিনি ছিলেন বড়। অপর দুইভায়ের মধ্যে দুলু নামক একভাই কানাডা প্রবাসী এবং অপর ভাই সাইফুল ইসলাম ঢাকায় চাকুরী করেন। আর তার তিন মেয়ের মধ্যে বড় মেয়ে জান্নাতুল ফেরদৌস জেবা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সম্প্রতি পড়াশুনা শেষ করেছেন, মেঝ মেয়ে ফাতেমা-তুজ-জহুরা পাবনা মেডিকেল কলেজের ৪র্থ বর্ষের শিক্ষার্থী এবং ছোট মেয়ে পাবনা ইমাম গাজ্জালী স্কুল এন্ড কলেজের এইচ এস সি ২য় বর্ষে পড়াশুনা করছে।

error: অতি চালাকের গলায় দড়ি !!