সুজানগরের বিভিন্ন দোকানে সংঘটিত হওয়া চুরির মালামাল উদ্ধার

সুজানগরের বিভিন্ন দোকানে সংঘটিত হওয়া চুরির মালামাল উদ্ধার, গ্রেফতার-১

সুজানগর পৌর বাজারে অবস্থিত বইমেলা লাইব্রেরী সহ উপজেলার অন্যান্য স্থান থেকে চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করেছে পুলিশ। সম্প্রতি সুজানগর পৌর বাজার সহ বিভিন্ন স্থানে চুরি হওয়ার পর সংঘবদ্ধ চোর চক্রের ১ সদস্যকে গ্রেফতারের পর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী পাবনার বিভিন্ন স্থান থেকে মোবাইল ফোন, ট্যাব সহ অন্যান্য জিনিসপত্র উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার পাবনার পুলিশ সুপার শেখ রফিকুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম এক সংবাদ সম্মেলনে এ সব কথা জানান। এ সময় পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শামিমা আখতার মিলি, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাসুদ আলম, পাবনা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার(সুজানগর সার্কেল) ফরহাদ হোসেন, সুজানগর থানার অফিসার ইনচার্জ বদরুদ্দোজা সহ পুলিশ প্রশাসনের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

সুজানগর থানা পুলিশ জানায় সুজানগর পৌর বাজারে অবস্থিত বইমেলা লাইব্রেরী, নাজিরগঞ্জ ইউনিয়নের উদয়পুর বাসস্ট্যান্ড মোড়ে ইলেকট্রনিক্স একটি দোকানে সহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে গত ১৫ দিনে কয়েকটি চুরি সংঘটিত হয়। এ সংক্রান্তে সুজানগর থানার মামলা হয়।

পরে পুলিশ বইমেলা লাইব্রেরীর সিসি ফুটেজ দেখে উক্ত ঘটনাগুলোর রহস্য উদঘাটনে ও চোরাই মালামাল উদ্ধারের জন্য মাঠে নামে। পরবর্তীতে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে আসামী মোঃ বাবু প্রামানিক (২৫), পিতা-মৃত ছাত্তার প্রামানিক, সাং-কাঁচারীপাড়া, থানা ও জেলা-পাবনাকে গ্রেফতার করে ঘটনার বিষয় জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে এই মামলার ঘটনায় জড়িত থাকার বিষয় স্বীকার করে এবং তার সহযোগীদের নাম উল্লেখ করে।

পাবনা সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (সুজানগর সার্কেল) ফরহাদ হোসেন বলেন পাবনা জেলা পুলিশ সুপার, শেখ রফিকুল ইসলাম (বিপিএম, পিপিএম) স্যার এর নির্দেশে জেলা গোয়েন্দা শাখা ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তাকে সাথে নিয়ে আমরা ঘটনাগুলোর রহস্য উদঘাটনে ও চোরাই মালামাল উদ্ধারের জন্য তৎপরতা শুরু করি।

এবং গ্রেফতারকৃত আসামী বাবুর দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে পাবনা সদর থানার বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে তাদের চোরাই কাজে ব্যবহৃত ১টি কালো রংয়ের মাইক্রোবাস উদ্ধার ও জব্দ করা হয় । এবং এ ঘটনায় অপর আসামীদের ধরতেও পুলিশ অভিযান অব্যাহত রেখেছে বলে জানানো হয়।

error: অতি চালাকের গলায় দড়ি !!