সুজানগরের পদ্মায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ১৯ জনকে দন্ড প্রদান

সুজানগরের পদ্মায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের দায়ে ১৯ জনকে দন্ড প্রদান

পাবনার সুজানগর উপজেলার পদ্মা নদী থেকে অবৈধভাবে বালু তোলার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে আটক ১৯ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ড ও অর্থদন্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এদের মধ্যে ৬ জনকে সাড়ে তিন লাখ টাকা অর্থদন্ড ও ১৩ জনকে বিনাশ্রম কারাদন্ড প্রদান করা হয়।

অর্থদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন সুজানগর উপজেলার বেড়াদুলিয়া গ্রামের আব্দুস শুকুরের ছেলে মিজানুর রহমান মিজান (২৭), পাবনা সদর উপজেলার খোদচাঁদপুর গ্রামের মকবুল প্রাং এর ছেলে মুরাদ প্রাং (৩৫), পাবনা সদর উপজেলার ভাদুরডাঙ্গী গ্রামের মৃত আফছার আলী খানের ছেলে শাহীন খাঁ (৪৫), ভাঁড়ারা ইউনিয়নের নলদহ গ্রামের মৃত জলিল শেখের ছেলে আমজাদ শেখ (৫২), পাবনা সদর উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের চরমধুপুর গ্রামের মৃত আবেদ মন্ডলের ছেলে আলাল মন্ডল (৪০) ও পাবনা সদর উপজেলার আওরঙ্গবাদ এলাকার মৃত হারান খানের ছেলে হোসেন খান (৪৫)।

সর্বনিম্ন ৫ দিন থেকে সর্বোচ্চ ১৫ দিন পর্যন্ত বিভিন্ন মেয়াদে বিনাশ্রম কারাদন্ডপ্রাপ্তরা হলেন কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা উপজেলার বারমাইল গ্রামের মোকাদ্দেস সরদারের ছেলে অমিত হাসান (২০), পাবনা সদর উপজেলার ভাঁড়ারা ইউনিয়নের চর মধুপুর গ্রামের মৃত আবেদ আলী বিশ্বাসের ছেলে আবুল বিশ্বাস (৫৫), ভাঁড়ারা গ্রামের আক্কাজ শেখের ছেলে বকুল শেখ (৪০), ভাঁড়ারা ইউনিয়নের নলদহ গ্রামের হাসান আলী খানের ছেলে রফিক খান (৪১), ভাঁড়ারা ইউনিয়নের চরমধুপুর গ্রামের আকবর শেখের ছেলে আব্দুর রব (৩৭), পাবনা সদর উপজেলার চরতারাপুর ইউনিয়নের ভাদুরডাঙ্গী গ্রামের বাদশা সরদারের ছেলে রাকিব হাসান (১৯), ভাঁড়ারা ইউনিয়নের নলদহ গ্রামের মৃত নওজেশ আলীর ছেলে নুরুল ইসলাম (৪৩), ভাঁড়ারার নলদহ গ্রামের মৃত জুব্বার খানের ছেলে আব্দুর রশিদ, নাটোর জেলার গুরুদাশপুর উপজেলার বিলশা গ্রামের আব্দুর রশিদের ছেলে কামাল হোসেন (২৮), মৃত খলিল সরকারের ছেলে বাবুল সরকার (৩৫) ও মাহতাব উদ্দিনের ছেলে মাসুদ রানা (২১), কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলার বালিয়াপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল জলিল এর ছেলে তোফাজ্জল হোসেন, সিরাজগঞ্জ জেলার তাড়াশ উপজেলার দিঘুরিয়া গ্রামের নান্নু প্রাং এর ছেলে বাইজিদ হোসেন (২১)।

সুজানগর থানার ওসি (তদন্ত) হাদিউল ইসলাম জানান, সুজানগরের পদ্মানদীর হাজারবিঘা নামক এলাকা থেকে অবৈধভাবে বালু তোলা হচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ রওশন আলী ও সুজানগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বদরুদ্দোজা নেতৃত্বে শনিবার দুপুরে অভিযান চালিয়ে ওই ১৯ জনকে আটক করে পুলিশ।

পরে আটককৃতদের ভ্রাম্যমান আদালতে হাজির করা হলে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) স্বাক্ষ্য প্রমাণের ভিত্তিতে এ রায় দেন।

error: অতি চালাকের গলায় দড়ি !!