বুধবার থেকে সুজানগরে ২২দিন ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ হচ্ছে

মা ইলিশ নিরাপদ প্রজননের লক্ষ্যে বুধবার (১৪ অক্টোবর) থেকে দেশের অন্যান্য স্থানের মত সুজানগরের পদ্মায়ও ইলিশ আহরণ নিষিদ্ধ করেছে সরকার। সুজানগর পৌরসভার চরভবানীপুর থেকে সাগরকান্দি ইউনিয়নের প্রায় পর্যন্ত ৫০ কিলোমিটার নদী উপকুলীয় এলাকা ১৪ থেকে ৪ নভেম্বর ২২ দিন ইলিশ আহরণ, পরিবহন, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয়, মজুদ ও বিনিময় সম্পূর্ণরুপে নিষিদ্ধ থাকবে।

সুজানগর উপজেলা মৎস্য দপ্তর জানিয়েছে, জাতীয় সম্পদ ইলিশ উৎপাদন বৃদ্ধি ও মা ইলিশ রক্ষায় ইলিশ আহরণ থেকে বিরত থাকার জন্য জেলেদের মাঝে সচেতনতামূলক প্রচারণা অব্যাহত রয়েছে।
সুজানগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলী জানান ১৪ অক্টোবর থেকে ৪ নভেম্বর এই সময়ে ৮০ শতাংশ মা ইলিশ ডিম পাড়ে। তারা ডিম পাড়ে মূলত মিঠাপানিতে। তাই ২২ দিন সুজানগরের পদ্মা নদীতে ইলিশ মাছ ধরা নিষিদ্ধ থাকবে। সরকার ঘোষিত ২২ দিনের এই কর্মসূচি বাস্তবায়নে তারা তৎপর রয়েছে। নিষেধাজ্ঞার সময়ে কোন জেলে নদীতে নামতে পারবে না। আর নামলে আইন অমান্যকারীকে মৎস্য আইনে সাজা প্রদান করা হবে।

সুজানগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহীনুজ্জামান শাহীন বলেন, ২২ দিন ইলিশ আহরণ, পরিবহন, বাজারজাতকরণ, ক্রয়-বিক্রয়, মজুদ ও বিনিময় এই উপজেলায় সম্পূর্ণরুপে নিষিদ্ধ থাকবে। আর কেউ যদি এই নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে তবে তাদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট প্রশাসন আইনানুগ কঠোর ব্যবস্থা গ্রহন করবে বলে জানান তিনি।

error: অতি চালাকের গলায় দড়ি !!