বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙ্গালির প্রেরণার উৎস: মেয়র আব্দুল ওহাব

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চের ভাষণ বাঙ্গালির প্রেরণার উৎস: মেয়র আব্দুল ওহাব

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর দেয়া ৭ মার্চের ভাষণ দেশবাসীর জন্য একটি স্মরণীয় অধ্যায়। বাংলাদেশের স্বাধীনতা-সংগ্রামে অমিত শক্তির উৎস ছিল এ ঐতিহাসিক ভাষণ। ১৯৭১ সালের ৭ মার্চ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাষণের মধ্যে দিয়ে বাঙ্গালির মধ্যে প্রেরণার সৃষ্টি হয়েছিল বলে জানিয়েছেন উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও পৌর মেয়র আলহাজ্ব আব্দুল ওহাব ।

রবিবার সুজানগর পৌরসভার উদ্যোগে ঐতিহাসিক ৭ মার্চ জাতীয় দিবস উদযাপন উপলক্ষে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি আরো বলেন, ঐতিহাসিক ৭ মার্চের ভাষণ ইউনেস্কোর মেমরি অব দ্যা ওয়ার্ল্ড ইন্টারন্যাশনাল রেজিস্ট্রারে অন্তভূক্তির মাধ্যমে বিশ্ব প্রামান্য স্বীকৃতি লাভ অসামান্য অর্জন।

বঙ্গবন্ধু জীবিত না থাকলেও তার স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করে চলেছেন তারই সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন শুধু জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পন করলেই দায়িত্ব শেষ হয়ে যাবেনা। বঙ্গবন্ধুকে অন্তরে ধারণ করতে হবে। জনকল্যাণে ঝাঁপিয়ে পড়তে হবে। দেশ প্রেমে উদ্বুদ্ধ হতে হবে সবাইকে।

পৌরসভার প্যানেল মেয়র হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে ও পৌরসভার কর্মকর্তা বাবুল ইসলামের সঞ্চালনায় পৌরসভার হলরুমে অনুষ্টিত ঐতিহাসিক ৭ মার্চ জাতীয় দিবসের আলোচনা সভায় রাণীনগর ইউপি চেয়ারম্যান জিএম তৌফিকুল ইসলাম পিযুষ, উপজেলা আওয়ামীলীগের দপ্তর সম্পাদক আজিজুর রহমান আরজু, পৌরসভার স্টাফ মাসুদ রানা, সাজেদুল হক ও ছাত্রলীগ নেতা সোহেল রানা প্রমুখ বক্তব্য দেন। পরে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে এদিন সকালে সুজানগর পৌরসভার পক্ষ থেকে সুজানগর মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবনের সামনে বঙ্গন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ করা হয়।

error: অতি চালাকের গলায় দড়ি !!